1. mahbubur2527@gmail.com : Mahbubur Rahman Sohel : Mahbubur Rahman Sohel
  2. saidur.yc@gmail.com : SAIDUR RAHMAN : SAIDUR RAHMAN
  3. jannatulakhi1123@gmail.com : Jannatul akhi Akhi : Jannatul akhi Akhi
  4. msibd24@gmail.com : Fazlul Karim : Fazlul Karim
  5. Mofazzalhossain8@gmail.com : Mofazzal Hossain : Mofazzal Hossain
  6. saidur.yc@hotmail.com : Saidur Rahman : SAIDUR RAHMAN
  7. jim42087070@gmail.com : Lokman Hossain : Lokman Hossain
  8. galib.ip2@gmail.com : Al Galib : Al Galib
  9. sikhanphd3@gmail.com : Shafiqul Islam : Shafiqul Islam
আজ ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ সময় দুপুর ১২:১৭
শিরোনাম
ময়মনসিংহের ভালুকায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১ পাবনার সাঁথিয়ায় ডিজিটাল ম্যারাথন সমাপ্ত মৌলভীবাজারে সরকারি কলেজ তালামীযের সেমিনার অনুষ্ঠিত দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার কাটলা ইউনিয়নে বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্টিত কুড়িগ্রাম সীমান্তে মাদক রেখে পাচারকারীর পলায়ন,আটক১ গৌরীপুরে মানুষকে সচেতন করতে টিকা নিলেন নায়িকা জ্যোতিকা জ্যোতি। মৌলভীবাজার পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলারের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যার প্রতিবাদে ঝালকাঠিতে টেলিভিশন সাংবাদিক সমিতির মানববন্ধন ! পাবনায় ঘরের নামে টাকা নিয়ে এখন অস্বীকার চেয়ারম্যানের ঝালকাঠির রাজাপুরে মাদকদ্রব্যসহ এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক !

কুড়িগ্রামে চর ঘনশ্যামপুরে কেউ ত্রান পায় নি

Reporter Name
  • আপডেটের সময় : বুধবার, মে ২৭, ২০২০,
  • 260 দেখুন

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ ফজলুল করিম ফারাজী

কুড়িগ্রাম জেলার যাত্রাপুর ইউনিয়নের অধিনস্থ ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে গড়ে ওঠা বিস্তীর্ণ চরাঞ্চলের মধ্যে একটি চর ঘনশ্যামপুর। দূর থেকে দেখলে মনে হয়,এ যেন এক ভিন্ন পৃথিবী। এখানে প্রায় শতাধিক পরিবারের বসবাস। এই চরে বসবাসরতরা ব্রহ্মপুত্র নদের সঙ্গে একাধিকবার যুদ্ধ করে ভিটেমাটি হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে গেছেন। তাইতো বাধ্য হয়ে এই চরের জমির মালিকদের বিঘা প্রতি ৫০ হাজার টাকা ভাড়া দিয়ে বসবাস করছেন একাধিক পরিবার। সেটারও মেয়াদ পরবর্তী বন্যা পর্যন্ত। পরবর্তী বন্যা আসলে আবারো তাদের অন্যত্র যেতে হবে। এমনি করে ভাঙা ও গড়ার মাঝেই চলছে তাদের জীবন।চর ঘনশ্যামপুরের বাসিন্দা বৃদ্ধ তমছের উদ্দীন স্বাধীন বাংলা ১৬. কমকে জানান, নদী ভাঙনে নিঃস্ব হয়ে এখন অন্যের জমি ভাড়া নিয়ে থাকেন। করোনার কারণে কাজ বন্ধ। তাই অনাহারে-অর্ধাহারে মানবেতর জীবনযাপন করলেও সরকারের থেকে এখনো কোনো ত্রাণ পাননি।চর ঘনশ্যামপুরের আরো একজন বাসিন্দা মজিদ বলেন, ‘হামরা গরিব, নদী ভাঙ্গা মানুষ, হামার খোঁজ কাঁই নেয়?এ বিষয়ে যাত্রাপুর ইউনিয়নের (ইউপি) চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী সরকার সাথে কথা বললে তিনি জানান ‘আমরা অন্যান্য বারের চেয়ে এবার ত্রাণ কম পেয়েছি। তাই সবখানে ত্রাণ দেয়া সম্ভব হয়নি। তবে আমরা পর্যায়ক্রমে সব জায়গায় ত্রাণ দেব।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর

https://shadhinbangla16.com © All rights reserved © 2020

theme develop by shadhinbangla16.com
themesbazarshadinb16
bn Bengali
X